রিকশাচালককে মারধর করে ভাইরাল সেই আইনজীবীকে শোকজ

যশোরে রিকশাচালককে প্রকাশ্যে মারধরের ঘটনায় সেই নারী আইনজীবীকে শোকজ করেছে যশোর জেলা আইনজীবী সমিতি।

মঙ্গলবার সকালে আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবু মোর্তজা স্বাক্ষরিত নোটিশ আইনজীবী আরতি রানির বাড়িতে পাঠানো হয়। গত রোববার দুপুরে যশোর আদালতের সামনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সড়কে এক রিকশাচালককে মারধরের অভিযোগ ওঠে আইনজীবী আরতি রানী ঘোষের বিরুদ্ধে।

ওই ঘটনার ভিডিও সোমবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়লে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়।

এ বিষয়ে আবু মোর্তজা বলেন, আইনজীবীদের প্রতীক কালো গাউন পরা অবস্থায় রিকশাচালককে প্রকাশ্যে মারধরের ঘটনায় আইনজীবীদের জন্য মর্যাদাহানিকর। এ বিষয়ে বক্তব্য উপস্থাপনের জন্য আরতি রানি ঘোষকে কারণ দর্শানোর নোটিশ পাঠানো হয়েছে। ওই নোটিশে আগামী তিন দিনের মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়েছে।

অভিযুক্ত আইনজীবীর নাম আরতি রানি ঘোষ শহরের আম্বিকা বসু লেনের মৃত নীলরতন ঘোষের স্ত্রী। আর ভুক্তভোগী রিকসাচালক সদর উপজেলার চুড়ামনকাটি ইউনিয়নের আব্দুলপুর সিজালি গ্রামের সাইফুল ইসলাম।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ৬ মিনিট ৩৯ সেকেন্ডের ভিডিওতে দেখা গেছে, কালো গাউন পরা ৫০ বছর বয়সী এক নারী আইনজীবী রিকশাচালকের শার্টের কলার ধরে রিকশা থেকে নামিয়ে একের পর এক চড় মারছেন। মারতে মারতে তাকে রিকশার চাবি নিয়ে পৌরসভায় যেতে বলেন। জামার কলার ধরে বারবার রিকশাচালককে পৌরসভায় নিয়ে লাইসেন্স বাতিল করার হুমকিও দেন।

ভিডিওতে আরও দেখা যায়, মারধরের সময় রিকশাচালক হাত উচু করে মাফ চান। আকুতি-মিনতি করলেও ওই আইনজীবী তাকে ছাড়েননি, এলোপাতাড়ি চড় মারতে থাকেন। এ সময় পথচারীরা আইনজীবীকে থামানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। ভিডিওতে অপর এক পথচারীর মুখে শোনা যায়, অভিযুক্ত আইনজীবী রিকশাচালককে জুতা পেটাও করেছেন। তারা এ ঘটনার প্রতিবাদ করলে আইনজীবী রিকশাচালককে চড়-থাপ্পড় মেরেই যাচ্ছিলেন। একপর্যায়ে এক নারী এগিয়ে এসে প্রতিবাদ করলে শান্ত হন তিনি। এ সময় ওই রিকশাচালক তার রিকশা নিয়ে চলে যান।

এই বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত আইনজীবী আরতি রানি ঘোষের মুঠোফোনে দুপুরে কয়েক দফা যোগাযোগ করা হলে বন্ধ পাওয়া যায়। তবে ঘটনার দিন তিনি সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, তিনি কোর্ট শেষে ফেরার পথে সড়ক পার হতে গেলে ওই রিকশাচালক তাকে ধাক্কা দেন। এতে তিনি পড়ে গিয়ে আহত হন। এ কারণে তাকে (রিকশাচালক) মারধর করেন। উত্তেজিত হয়ে মারধর করে ফেলেছেন বলে সাংবাদিকদের কাছে দাবি করেছেন তিনি।

এমন আচরণ করা ঠিক হয়েছে কিনা এ প্রশ্নে আরতি রানি বলেন, ‘ওকে কি পুজো করব?’ রিকশাচালককে মেরে তিনি সঠিক কাজ করেছেন বলেও জানান।

awesome)

About admin

Check Also

পুলিশের হাত থেকে পালাল আসামি

রাজধানীর মিরপুরের দারুস সালামে পুলিশের হাত থেকে এক আসামি পালানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। রোববার ভোর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *