Breaking News

গুলির বদলে গুলি, রক্তের বদলে রক্ত চাই: রহিমের স্ত্রী

‌‘আমি আমার স্বামীকে হত্যার বিচার শেখ হাসিনার সরকারের কাছে চাই না। আমি হত্যার বদলে হত্যা চাই, গুলির বদলে গুলি চাই, রক্তের বদলে রক্ত চাই!’
শনিবার (৫ নভেম্বর) বরিশাল নগরের বঙ্গবন্ধু উদ্যানে বিএনপির বিভাগীয় গণসমাবেশে এসব কথা বলেন ভোলায় বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা আব্দুর রহিমের স্ত্রী খাদিজা বেগম।

তিনি বলেন, আমি দুনিয়ায় অসহায় হয়ে পড়েছি। আমার সন্তানদের এতিম করে দেওয়া হয়েছে। আমার স্বামীর কোনো অন্যায় ছিলো না। আমার স্বামীর অন্যায় ছিলো তিনি শেখ হাসিনার বিপরীত মতাদর্শের নীতি ভালোবাসতেন। এটা কোনো অন্যায় হতে পারে না।

গণসমাবেশে আরো বক্তব্য দেন- বরিশাল মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি ফিরোজ খান কালু ও তার ভাই মিরাজ খানের মা ফিরোজা বেগম।

তিনি বলেন, আমার দুই ছেলেকে গুম করা হয়েছে। এই সরকার নিজেদের মানবতার সরকার বলে দাবি করে। আমার ছোট ছেলে মিরাজ খানে বয়স তখন মাত্র ১৫ বছর। আমার দুই ছেলের কী দোষ ছিল তাদের গুম করা হলো? আমার বুক খালি করা হলো! আমি আমার ছেলেদের ফেরত চাই। এই মঞ্চে আমার বড় ছেলে কালুর স্ত্রী ও ছেলের আসার কথা ছিলো। কিন্তু খুনি সরকার সকল যানবাহন বন্ধ করে দেওয়ার তারা আসতে পারেনি। আমি আমার ছেলেদের ফেরত চাই। আমার ছোট নাতি তার বাবাকে ফেরত চায়।

শনিবার জোহরের নামাজের আগেই বিএনপির বিভাগীয় গণসমাবেশ মঞ্চে উপস্থিত হন সমাবেশের প্রধান অতিথি বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, আমীর খসরু মাহামুদ চৌধুরী, ড. আবাদুল মঈন খান ও বেগম সেলিমা রহমান। সমাবেশে সভাপতিত্ব করছেন বরিশাল মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক মনিরুজ্জামান ফারুক।

About admin

Check Also

প্রধানমন্ত্রীর মহানুভবতায় চাকরি পেলেন পা হারানো ছাত্রলীগ নেতা মাসুদ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মহানুভবতায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে চাকরি পেয়েছেন ছাত্রশিবিরের নৃশংস হামলায় পা হারানো ছাত্রলীগ নেতা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *