Breaking News

ভোলা-বরশিাল রুটে লঞ্চ ও স্পডিবোট চলাচল বন্ধ, ভোগান্ততিে যাত্রীরা

ভোলা-বরশিাল রুটে লঞ্চ ও স্পডিবোট চলাচল বন্ধ, ভোগান্ততিে যাত্রীরা। বরশিালে বএিনপরি সমাবশেকে কন্দ্রে করে ভোলা-বরশিাল রুটে লঞ্চ ও স্পডিবোট চলাচল বন্ধ করা হয়ছেে বলে মনে করছে মানুষ। এদকিে এমভি আওলাদ লঞ্চে লুট পাট ও ভাংচুর করার অভযিোগ উঠছে।েবুধবার রাত ১১টার পর থকেে অনদিষ্টিকালরে জন্য লঞ্চ ও স্পডিবোট চলাচল বন্ধ রাখার সদ্ধিান্ত নয়ে লঞ্চ র্কতৃপক্ষ। অপর দকিে রাত ১২ টার সময় ভদেুরযি়া লঞ্চ ঘাটে ভোলা-বরশিাল রুটে চলাচলকারী এমভি আওলাদ লঞ্চে লুটপাট ও ভাংচুর করা হয়ছেে বলে অভযিোগ উঠছে।েএমভি আওলাদ লঞ্চরে মালকি ও ভোলা সদর উপজলোস্বচ্ছোসবেক দলরে আহ্বায়ক মোঃ ইব্রাহমি খললি অভযিােগ করনে, বএিনপরি সমাবশেকে কন্দ্রে করে আওয়ামী লীগরে সন্ত্রাসীরা তার মালকিানাধীন লঞ্চে ভাংচুর করে এবং লুট পাট করনে।

অপরদকিে বৃহস্পতবিার ভোররে পরে ভোলার ভদেুরয়িা ঘাট থকেে আর কোনো লঞ্চ ও স্পডিবোট ছড়েে যায়ন।ি এতে চরম ভোগান্ততিে পড়ছেনে যাত্রীরা। প্রয়োজনরে তাগদিে ঘাটে এসওে ফরিে গছেন অনকে।ে সারাদনিই পুরো ঘাট একদম ফাঁকা রয়ছে।েভোলা লঞ্চ মালকি সমতিরি সভাপতি জানান, বএিনপরি সমাবশেকে কন্দ্রে করে নাশকতা হতে পার।ে এমন আশংকায় তারা লঞ্চ ও স্পডিবোট চলাচল বন্ধ রখেছেনে।লঞ্চ মালকিরা আরো বলছনে, সকাল থকেে ভোলা থকেে বরশিালরে উদ্দশেে কোন লঞ্চ যাচ্ছনে না। তাদরে উত্তজেনাকে কন্দ্রে করে যে কোনো সময় হামলা হতে পার।ে তাই নৌ-যানরে নরিাপত্তায় লঞ্চ ও স্পডিবোট চলাচল বন্ধ রাখা হয়ছে।ে

তবে জরুরি রোগীদরে আনা-নওেয়ার জন্য কছিু বোট চালু থাকব।ে সব কছিু নর্ভির করছে পরবিশে পরস্থিতিরি উপর।জলো বএিনপরি সভাপতি গোলাম নবী আলমগীর অভযিোগ করনে, বরশিালে বএিনপরি সবাবশেকে কন্দ্রে করে ভোলা-বরশিাল রুটে লঞ্চ ও স্পডিবোট চলাচল বন্ধ করে দয়িছে।ে এমভি আওলাদ লঞ্চে লুটপাট ও ভাংচুর করা হয়ছে।ে আমাদরে নতো র্কমীদরে প্রতরিোধ হামলা ও আটক করছনে। আমরা তার তীব্র নন্দিা জানাই।এদকিে সকাল থকেে দখো গছেে ঘাটে নোঙর করে রাখা হয়ছেে শত শত বোট ও লঞ্চ। সখোনে অলস সময় পার করছনে শ্রমকিরা।

About admin

Check Also

এবার নারীরা আসছেন কাবা-মসজিদে নববির উচ্চপদে

বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে থাকা ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের দুই শীর্ষ পবিত্রস্থান কাবা শরিফ এবং মসজিদে নববির প্রশাসনের নেতৃস্থানীয় …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *