‘হেঁটে হেঁটে মানুষ গণভবনে পৌঁছে যাবে’

দুই দিন ধরে খুলনা বিভাগের মানুষকে পিঁপড়ার মতো হেঁটে হেঁটে সমাবেশে উপস্থিত হতে হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির খুলনা বিভাগীয় ভারপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিত। তিনি বলেন, নেতাকর্মীরা কখনো গাড়িতে, কখনো ট্রেনে, কখনো মোটরসাইকেলে, কখনো নছিমনে বা হেঁটে এখানে এসেছেন। অনেকে হামলার শিকার হয়েছেন। পথে পথে বাধা পেয়েছেন। পথঘাট থেকেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলায় নিয়োজিত বাহিনীরা দুর্বল ভেবে আজ খুলনা রেলস্টেশনে আমাদের আঘাত করতে চেয়েছিল, যশোরের মানুষ যথাযথ উত্তর তাদের দিয়েছেন।

শনিবার (২২ অক্টোবর) বিকেলে খুলনার ডাকবাংলো সোনালী ব্যাংক চত্বরে বিএনপির গণসমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

অনিন্দ্য ইসলাম বলেন, ‘শেখ হাসিনা, আপনি রাজনৈতিকভাবে দেউলিয়া হয়ে গেছেন। আমাদের নেতা–কর্মীদের ওপর যে আঘাত হেনেছেন, প্রতিটি আঘাতের রাজনৈতিক প্রতিশোধ নেব আমরা। যেভাবে হেঁটে মানুষ সমাবেশে পৌঁছেছেন, সেভাবে প্রয়োজনে হেঁটে হেঁটে মানুষ গণভবনে পৌঁছে যাবেন। সরকারপ্রধানকে মসনদ থেকে টেনেহিঁচড়ে নামিয়ে নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি প্রতিষ্ঠা করবেন।

খুলনা বিভাগীয় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক বলেন, আমাদের খুলনায় গণসমাবেশে জনসমুদ্র আর এই বিশাল আয়োজন দেখে বিস্মিত তারেক রহমান। আওয়ামী লীগ ভেবেছিল তাদের বাধায় আমাদের কেউ আসবে না। তবে এখানে জমায়েত জনসমুদ্রে পরিণত হয়েছে। তাদের দেখিয়ে দিয়েছি, আমাদের দুর্বল ভেবো না। রেলস্টেশনে বাধা দিয়েছিল, যশোরের নেতা-কর্মীরা আমাদের শক্তি দেখিয়ে দিয়েছে।

অমিত আরও বলেন, এই খুলনায় আজ লাখো কণ্ঠে বাঘের গর্জন শুরু হলো। ডিসেম্বরের মধ্যে আওয়ামী লীগের পতন আমরা ঘটাব। তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনব।
খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি, নির্বাচনকালীন সরকার, জ্বালানিসহ নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি, পুলিশের গুলিতে নেতাকর্মী হত্যা, হামলা ও মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে দেশের বিভাগীয় শহরগুলোতে গণসমাবেশের অংশ হিসেবে খুলনায় বিএনপির এ বিভাগীয় সমাবেশ। এতে যোগ দিতে শুক্রবার রাতেই নেতাকর্মীরা খুলনায় আসতে থাকেন। পরে সকাল থেকে দলে দলে সমাবেশে যোগ দেন নেতাকর্মীরা।

About admin

Check Also

১৯১ অনলাইন নিউজ পোর্টাল বন্ধে চিঠি দেয়া হয়েছে : তথ্যমন্ত্রী

১৯১টি অনলাইন নিউজ পোর্টালের লিংক বন্ধে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগে চিঠি পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *