Breaking News

ফখরুলের উচিত তারেকের বিষয়ে মার্কিন সম্পর্ক উন্নত করা: শাহরিয়ার

সরকারের প্রতি মার্কিন নিষেধাজ্ঞা চেয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্য রাষ্ট্রদ্রোহিতার শামিল বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম। তিনি এও বলেছেন, ফখরুলের উচিত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিষয়ে মার্কিন সম্পর্ক আরও উন্নত করা।

বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর) দুপুরে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার। এ সময় তাবে বিভিন্ন প্রশ্ন করেন উপস্থিত সাংবাদিকরা।

মার্কিন সম্পর্ক ও তারেক রহমানের বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে শাহরিয়ার বলেন, তার (তারেক) জন্য বাংলাদেশ ও মার্কিন সম্পর্কে অনেক সমস্যা আমরা দেখেছি। সেখান থেকে বরং মির্জা ফখরুলের উচিত তারেক রহমানের বিষয়ে মার্কিন সম্পর্ক আরও উন্নত করা। তিনি যদি মনে করেন বিদেশিদের সাহায্য নিয়ে নির্বাচনে বাঁধার সৃষ্টি করবেন তাহলে সেটি ভুল ধারণা। সরকারের প্রতি মার্কিন নিষেধাজ্ঞা চেয়ে মির্জা ফখরুল সম্প্রতি বক্তব্য দিয়েছেন দেখলাম, তা যদি সত্য হয় তবে সেটি রাষ্ট্রদ্রোহিতার শামিল।

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের ডেপুটি সেক্রেটারি অফ স্টেট ওয়েন্ডি শেরম্যান বাংলাদেশে মানবাধিকার সমুন্নত রাখা এবং অবাধ ও শান্তিপূর্ণ জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠানের গুরুত্ব পুনর্ব্যক্ত করেছেন। তারা বলেছেন, নির্বাচন ফ্রি এবং ফেয়ার হওয়া চাই। আমরা এ বিষয়ে তাকে জানিয়েছি- নির্বাচন সুষ্ঠু হবে। তবে কোনো রাজনৈতিক দল যদি নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করে, সে দায়ভার আমাদের নয়।

আমাদের রাষ্ট্রদূতগণ যেমন অন্যান্য দেশে সব বিষয়ে কথা বলতে পারেন না, তেমনি তারাও আমাদের দেশে শিষ্টাচার বজায় রেখে চলবেন বলে আমরা প্রত্যাশা করি।

শাহরিয়ার জানান, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মস্বীকৃত খুনি ও দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি রাশেদ চৌধুরীকে বাংলাদেশের কাছে হস্তান্তর করার আহ্বান জানানো হয়েছে। দেশে আইনের শাসন নিশ্চিতে খুনি রাশেদ চৌধুরীর ইস্যুটি বাংলাদেশের জনগণ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

র‌্যাব ও বাহিনীর জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারেরও আহ্বান জানিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী। এ ছাড়া যুক্তরাষ্ট্র প্রায় ৮৮ মিলিয়ন কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন সরবরাহের মাধ্যমে করোনাভাইরাস মহামারি মোকাবিলায় বাংলাদেশকে ব্যাপকভাবে সহায়তা করায় দেশটির সরকারকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানানো হয়।

মিয়ানমার থেকে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যূত হয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের মানবিক সহায়তার কথাও বলেছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী। বাংলাদেশের মতো দেশগুলোর জন্য এলডিসি উত্তরণ যাতে টেকসই ও সহজ হয়; এ সম্পর্কিত বিষয়ে ডব্লিউটিওয় যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থনও চেয়েছেন শাহরিয়ার আলম।

উল্লেখ্য, এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের মধ্যে সর্বোচ্চ ১৬০ ভোট পেয়ে জাতিসংঘ মানবাধিকার কাউন্সিলের সদস্য নির্বাচিত হয়েছে বাংলাদেশ। নির্বাচনে ভোট প্রদানের সময় সাধারণ পরিষদ হলে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম।

About admin

Check Also

ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে মাগুরার দাদা বানিয়েছে আ. লীগ: ফখরুল

আওয়ামী লীগ নেতাদের উদ্দেশ্যে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আপনারা মাগুরা নির্বাচনের কথা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *