Breaking News

শুধু জয় ও বীর নয়, আরো একটি সন্তান রয়েছে চিত্রনায়ক শাকিব খানের

আমেরিকা থেকে দেশে ফেরার পর শাকিব খান বলেছিলেন তিনি বিয়ে করবেন এবং পরিবারের পছন্দ মতোই। এদিকে অপু বিশ্বাসের পরে তিনি বুবলিকে ও গোপনে বিয়ে করেছেন এবং তাদের বীর নামে আরেকটি সন্তান রয়েছে, যেটা হঠাৎ করে প্রকাশ্যে আনলেন তারা। আর এরপরেই শাকিব খান এবং বুবলির বিয়ে এবং তাদের ছেলেকে নিয়ে দেশজুড়ে আলোচনা সমালোচনা শুরু হয়েছে। তবে শাকিব খানের এই ধরনের কর্মকাণ্ড নীতিহীন ও অবিবেচকের কাজ বলেছেন অনেকেই। তারা নিজেদেরকে ঘোষণা করে যে তারা একটি ছেলে সন্তানের বাবা-মা, এবং তারা তাদের সেই সন্তানের ছবি প্রকাশও করে। তবে বীর ও জয়কে নিয়ে আলোচনার মধ্যেই জানা গেছে, বীর শাকিব খানের দ্বিতীয় নয়, তৃতীয় সন্তান।

সুপারস্টার হওয়ার আগে রাত্রি নামের এক অভিনেত্রীর সঙ্গে সম্পর্ক ছিল শাকিব খানের। তিনি এফডিসির চতুর্থ শ্রেণির শিল্পী ছিলেন। সম্পর্কের একপর্যায়ে তিনি সন্তান সম্ভাবা হয়ে পড়েন। আর তখনই তাদের সম্পর্কের অবনতি হতে থাকে। সাকিব রাত্রীকে সদ্য পেটে আসা সন্তানকে চিকিৎসার মাধ্যমে পৃথিবীতে না আনার জন্য পরামর্শ দেন কিন্তু রাত্রি তার পরামর্শ উপেক্ষা করেন। এরপর তিনি রাত্রির সঙ্গে আর যোগাযোগ রাখেননি। এ ঘটনার পর এফডিসির একাধিক সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

এমনকি শাকিবের ঘনিষ্ঠ একটি মহল দাবি করেছে, রাত্রির সামাজিক মর্যাদা অপু-বুবলির মতো না হওয়ায় শাকিব তার সন্তানকে পরিচয় দেননি। জানা গেছে, শাকিবের আরেক স্ত্রী নাম রাত্রী যার রাহুল খান নামে একটি সন্তান রয়েছে। তিনি বাংলামেটরের একটি ওয়ার্কশপে কাজ করেন মাত্র তিন হাজার টাকা বেতনে। কাজ ছাড়া বেশি কথা বলে না। পরিবারের প্রসঙ্গ আসলেই নীরব থাকে। বিশেষ করে বাবার প্রসঙ্গ আসলে কেমন যেন নির্বাক করার মতো। এফডিসিতে তার মা রাত্রীকে সবাই এক নামে চেনে।

তার মায়ের ক্যারিয়ার শুরু হয় সময়ের হার্টথ্রব নায়ক শাকিব খানের সঙ্গে। শাকিব খানের আসল নাম মাসুদ রানা। রাত্রি ওই মাসুদ রানার ঘনিষ্ঠ বান্ধবী ছিলেন। একপর্যায়ে রাত্রী শাকিবকে নাচ, গান শেখাতেন এমনকি তার বাড়িতেও থাকতেন। ২০০৮-০৯ সালের দিকে দেশের একটি জনপ্রিয় বিনোদন পাতায় একটি ছবি প্রকাশিত হয়। অভিনেত্রী রাত্রি ও শাকিব খানের বিয়ের ছবি। ছবিটি মুক্তির পর থেকেই চরমভাবে ক্ষুদ্ধ হন শাকিব খান।

এর আগে অপু বিশ্বাসের ক্ষেত্রেও একই ঘটনা ঘটেছে। একসঙ্গে অসংখ্য ব্যবসাসফল সিনেমা উপহার দেওয়া এই জুটি শুরু থেকেই প্রেমের গু”ঞ্জন শোনা গেলেও দুজনেই সবসময় সম্পর্কের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন কিন্তু এই সব গু”ঞ্জনের অবসান ঘটিয়ে ২০১৮ সালে শাকিব-অপুর সঙ্গে লাইভ অনুষ্ঠানে যোগ দেন অপু বিশ্বাস। ছেলে আব্রাম খান জয়। ২০০৮ সালে তাদের বিয়ে হওয়ার কথা সবার সামনে প্রকাশ করেন তারা।

প্রসঙ্গত, বুবলীর সঙ্গে শাকিব খানের সম্পর্কের কথা অনেকদিন ধরেই গুঞ্জন ছিল এবং বুবলির কারণেই শাকিব-অপুর সম্পর্ক ভেঙে যায়। এমনকি ২০২০ সালে বুবলী শাকিবের সন্তানের মা হয়েছেন এমন খবরও ছড়িয়ে পড়ে। কিন্তু সে সময় মুখ খোলেননি শাকিব-বুবলী কেউই। বেশ কিছুদিন ধরে শাকিব এবং বুবলির গোপন সম্পর্কের বিষয়টি নিয়ে কথা ছড়াতে থাকে এবং যেটার গুঞ্জন চলতেই থাকে। আবার অন্যদিকে জানা যায় বুবলির কারণেই শাকিব খান এবং অপু বিশ্বাসের বৈবাহিক সম্পর্কের পরিণতি ঘটে। এমনকি ২০২০ সালের দিকে বুবলি একটি সন্তান জন্ম দিয়েছেন এবং যার বাবা শাকিব খান এমন কথা ছড়িয়ে পড়ে, কিন্তু কোন এক কারনে তারা তাদের সম্পর্ক এবং সন্তানের বিষয়ে মুখ খোলেননি.

About admin

Check Also

ওবায়দুল কাদেরের উদ্বোধনী বক্তব্যের সময় হঠাৎ গোলাগুলি, হাসপাতালেএকজন

শুধু বিরোধী দলই নয়, বর্তমান ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সম্মেলনকে ঘিরেও ঘটছে নানা অপ্রত্যাশিত কাণ্ড। আর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *