প্রেমিকের সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার ২ বান্ধবী

পাবনার ঈশ্বরদীতে দুই গার্মেন্টস কর্মীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগে চারজনকে আটক করেছে পুলিশ।শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) রাতে উপজেলার মুলাডুলি শেখপাড়া এলাকায় কৃষি ফার্মের রাস্তার পাশে আখক্ষেতে এ ঘটনা ঘটে।আটকরা হলেন ঈশ্বরদীর লক্ষ্মীকোলা গ্রামের বাকী বিল্লাহর ছেলে আল আমিন (২৫), নাটোরের বড়াইগ্রাম থানার গোপালপুরের মৃত আমজাদ হোসেনের ছেলে আব্দুর রশীদ (৩৫), লক্ষ্মীকোলা গ্রামের নায়েব আলী সরদারের ছেলে মহিদুল সরদার (৩৫) ও বড়াইগ্রাম থানার রাজাপুরের চাঁন মিঞার ছেলে জাবেদ (৩৫)।

সংশ্লিষ্ট ঘটনায় থানায় মামলার পর আসামিদের গ্রেপ্তার দেখিয়ে রোববার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।মামলা সূত্রে জানা যায়, এক নারী গার্মেন্টস কর্মীর সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে ওঠে অভিযুক্ত আল আমিনের। সম্পর্কের জের ধরে ঈশ্বরদীতে দেখা করতে আসতে বলে আল আমিন। তার সঙ্গে দেখা করার জন্য ওই নারী তার বান্ধবীকে নিয়ে শনিবার বিকেলে ঈশ্বরদীর দাশুড়িয়া যান।আল আমিন বিভিন্ন কায়দা কৌশল খাটিয়ে বন্ধুবান্ধবদের সহযোগিতায় ঘুরিয়ে-ফিরিয়ে রাত ৮টার পর তাদের নির্জন এলাকার আখক্ষেতে নিয়ে সংঘবদ্ধভাবে ধর্ষণ করে।

ভুক্তভোগীদের চিৎকারে স্থানীয়রা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে বিষয়টি পুলিশকে জানায়। পুলিশ ঘটনার রাত সাড়ে ১০টার দিকে ভিকটিম নারীদের থানা হেফাজতে নিয়ে আসে।ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অরবিন্দ সরকার জানান, ভিকটিমদের বক্তব্য শুনে রাতেই কুষ্টিয়া ও বড়াইগ্রাম এলাকায় অভিযান চালিয়ে চার ধর্ষককে আটক করা হয়।

অপর আসামিদের ধরতে অভিযান চলছে। এ ঘটনায় থানায় আইনি প্রক্রিয়াসহ ধর্ষিতাদের মেডিকেল পরীক্ষার জন্য পাবনা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আসামিদের আদালতে সোর্পদ করা হয়েছে।

About admin

Check Also

সরকারের দেওয়া আশ্রায়ণের ঘর নিয়ে বিপাকে ভিক্ষুকপুত্র

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর পৌরসভায় সরকারের আশ্রায়ণ প্রকল্পের (খ শ্রেণি) ঘর পেয়েও সেখানে বসবাস করতে পারছেন না …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *