Breaking News

নিজেকে বাঁচানোর চেষ্টা করে বউকে জড়িয়ে ধরলাম,শেষে আমাকে রেখে বউকে নিয়ে গেল

একজন যুবক ও যুবতী যখন প্রথম বিয়ে করে তখন তাদের আনন্দের সীমা থাকে না। নিজের স্বামী-স্ত্রীকে নিয়ে বিভিন্ন ধরনের স্বপ্ন বাঁধতে থাকে তারা।  তেমনি মনিরুলের স্বপ্ন ছিল যে, তার স্ত্রীকে নিয়ে তিনি হানিমুনে যাবেন।  যেমন ভাবা তেমন কাজ বেরিয়ে পড়লেন অজানার উদ্দেশ্যে গিয়ে পৌঁছলেন কুয়াকাটা। তবে তার এই ভ্রমণ শুভনিও ছিলনা সেখানে যাওয়ার পর তার সাথে ঘটে গেল অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা।

পটুয়াখালীর কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতে হানিমুন করতে গিয়ে মনিরুল ইসলাম নামে এক পর্যটককে মারধর করা হয়েছে। অজ্ঞাত ৪-৫ জন তাকে মারধরের পর তার স্ত্রী তাকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। নি/ র্যাতিতা মনিরের অভিযোগ, সে তার সাবেক প্রেমিককে নিয়ে পালিয়েছে।

মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ১১টার দিকে কুয়াকাটা জিরোপয়েন্ট ফ্রাই মার্কেটের কাছে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে পুলিশ মনিরকে হেফাজতে নিলেও গৃহবধূকে উদ্ধার করতে পারেনি।

মারধরের শিকার পর্যটক মনিরুল ইসলাম বরগুনা জেলার কেজি স্কুলের আনোয়ার হোসেনের ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন সিঙ্গাপুর প্রবাসী ছিলেন।

নি/ র্যাতিতা জানান, পাঁচ দিন আগে তার বিয়ে হয়। মঙ্গলবার সকালে স্ত্রীরকে নিয়ে হানিমুনে কুয়াকাটায় আসি। একইদিন সন্ধ্যায় কুয়াকাটা পৌঁছে হোটেল তাজে অবস্থান করেন। পরে সৈকতে হাঁটার পর রুমে ফিরে এলেও স্ত্রীর অনুরোধে সৈকতে ফিরে যাই।

তিনি আরও বলেন, অনিচ্ছা সত্ত্বেও আমি সেখানে গেলে হঠাৎ ৪ থেকে ৫ জন আমার ওপর হামলা চালায়। তারপর নিজেকে বাঁচানোর চেষ্টা করে বউকে জড়িয়ে ধরলাম। কিন্তু আমাকে বাঁচানোর চেষ্টা না করে সে তাদের নিয়ে পালিয়ে যায়।

মনিরুলের অভিযোগ, স্ত্রী নূরে জান্নাত তার প্রেমিককে নিয়ে পালিয়ে গেছে।

খায়রুল নামে এক প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, ‘আমি তাদের (মনিরুল ও তার স্ত্রী) সমুদ্র সৈকতে নামতে দেখেছি। এর কিছুক্ষণ পর দেখলাম, লোকটা রক্তে ঢেকে আছে। কয়েকজন তাকে পুলিশ বক্সে নিয়ে আসেন।

কুয়াকাটা জোনের ট্যুরিস্ট পুলিশের পরিদর্শক হাসনাইন পারভেজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে আমরা মারধরের শিকার পর্যটককে উদ্ধার করেছি।তার শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।পরে আমাদের কয়েকজন দল আশেপাশে খোঁজাখুঁজি করেও তার স্ত্রীকে পায়নি।মনিরুল ইসলামকে নিয়ে গেছে তার পরিবারের সদস্যরা।

এদিকে নূর জান্নাতের বাবা হারুন অর রশিদ জানান, ঘটনার খবর পেয়ে তিনি কুয়াকাটায় আসেন। কিন্তু আমি এখনও জানি না আমার মেয়ে এখন কোথায় আছে।

নিখোঁজ ওই স্ত্রীর পরিবার জানিয়েছে তার  মেয়ের পূর্বে কোন সম্পর্ক ছিল বলে আমাদের জানা ছিল না।  আমাদের জামাইয়ের সাথে খুব খারাপ হয়েছে এটা আমরা দেখতে পাচ্ছি তবে আমার মেয়ে নিখোঁজ তাকে ফিরে না পাওয়া  পর্যন্ত  ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত ভাবে কিছু বলা যাচ্ছে না।

About admin

Check Also

ওবায়দুল কাদেরের উদ্বোধনী বক্তব্যের সময় হঠাৎ গোলাগুলি, হাসপাতালেএকজন

শুধু বিরোধী দলই নয়, বর্তমান ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সম্মেলনকে ঘিরেও ঘটছে নানা অপ্রত্যাশিত কাণ্ড। আর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *