শিক্ষার্থীদের ২৫ মোবাইল পানিতে ডুবিয়ে ইট দিয়ে ভাঙলেন শিক্ষা কর্মকর্তা

ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রে অবৈধভাবে মোবাইল ফোন সঙ্গে রাখায় সেগুলো উদ্ধার করে পানিতে ডুবিয়ে পরে ভেঙে ফেলা হয়েছে। গতকাল সোমবার দুপুরে পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে পরীক্ষা চলার সময়ে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় প্রায় ২৫টি মোবাইল ভেঙে ফেলেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আরিফুল্লাহ।

জানা যায়, গতকাল সোমবার ইংরেজি প্রথম পত্র পরীক্ষা চলার সময়ে পীরগঞ্জ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন মো. আরিফুল্লাহ। এ সময় দেহ তল্লাশি করে দুই কক্ষ পরিদর্শকসহ ২৫ জন পরীক্ষার্থীর কাছে মোবাইল পান তিনি। পরে সেগুলো জব্দ করে অফিস কক্ষে নিয়ে আসেন। এরপর মোবাইলগুলো পানিতে ডুবিয়ে রাখেন এবং পরে মেঝেতে ফেলে ইট দিয়ে সেসব ভেঙে ফেলেন ওই শিক্ষা কর্মকর্তা।

পীরগঞ্জ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র সচিব মফিজুল হক জানান, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার পরিদর্শনকালে উপজেলার উজ্জলকোঠা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক গোলাপসহ একজন কক্ষ পরিদর্শক এবং ২০ থেকে ২৫ জন পরীক্ষার্থীর কাছে মোবাইল ফোন পান। এর মধ্যে বেশ কিছু দামি ফোন ছিল। নিয়ম অনুযায়ী, পরীক্ষার্থী ও পরিদর্শক বহিষ্কার হওয়ার কথা। কিন্তু তিনি তা না করে ফোনগুলো ভেঙে ফেলেছেন।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আরিফুল্লাহ বলেন, প্রথমে পরীক্ষার্থীদের কাছে ফোন থাকলে তা জমা দিতে বলা হয়েছিল। কিন্তু কেউ দেয়নি। পরে তল্লাশি করে একেকজনের কাছে একাধিক মোবাইল পাওয়া যায়। এতে মাথা গরম হয়ে যায়।

ক্ষতির কথা চিন্তা করে পরীক্ষার্থীদের বহিষ্কার করেননি উল্লেখ করে এই শিক্ষা কর্মকর্তা আরও বলেন, তাদের খাতা কিছুক্ষণ আটক করে রাখা হয়েছিল। তবে কক্ষ পরিদর্শকদের শোকজ করা হবে।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শাহরিয়ার নজির বলেন, বিষয়টি জানা নেই। এ ব্যাপারে খোঁজ নিয়ে দেখবেন বলে জানান তিনি।

About admin

Check Also

সুখবর দিলেন মিথিলা

দুই বাংলার অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা। সম্প্রতি এই অভিনেত্রী জানালেন— নতুন একটি ওয়েব সিরিজে যুক্ত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *