মসজিদে ঈমান-আমলের বক্তব্য দিলেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব

রাজশাহী: রাজশাহীর কেন্দ্রীয় শাহ মখদুম (রহ.) দরগাহ জামে মসজিদে ঈমান ও আমল সম্পর্কে মুসল্লিদের উদ্দেশে বক্তব্য দিলেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে তিনি শাহ মখদুম দরগা জামে মসজিদে জুম্মার নামাজ আদায় করতে যান।সেখানে খুতবার আগে তিনি মুসল্লিদের উদ্দেশে বক্তব্য দেন।এ সময় মসজিদে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার জিএসএম জাফরউল্লাহ্‌ ও জেলা প্রশাসক (ডিসি) আব্দুল জলিল।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম খুতবার আগে মসজিদের মিম্বারে ওঠেন। এ সময় মুসল্লিদের উদ্দেশে তিনি বলেন- ঈমান বা বিশ্বাসের মূল্য আল্লাহ তাআলার কাছে সবচেয়ে দামি। তাই তো মুসলমানের কাছেও ঈমানের চেয়ে মহামূল্যবান আর কিছুই নেই। ঈমানের ওপর ভিত্তি করে মানুষের দুনিয়া ও পরকালের সব হিসাব-নিকাষ চূড়ান্ত হবে। ঈমান উত্তম চরিত্রের প্রতিফলন ঘটায়। যেমন নামাজ আদায়ের ক্ষেত্রে দেখা যায়; নামাজ মানুষকে যাবতীয় অশ্লীল ও অপছন্দনীয় কাজ থেকে রক্ষায় আত্মশুদ্ধি ও আত্মার উন্নতি সাধনে প্রভাব বিস্তার করে থাকে।

তিনি বলেন, আসুন উত্তম চরিত্র, নীতি নৈতিকতার মাধ্যমে আমরা আমাদের ব্যক্তি জীবন, সামাজিক ও পারিবারিক জীবনকে সুন্দর থেকে সুন্দরতর করে তুলি। যাতে করে একটি সুখী সমৃদ্ধ সমাজ গড়ে ওঠে। উত্তম চরিত্র ঈমানকে পরিপূর্ণ করে। চারিত্রিক সৌন্দর্য অর্জন না করে ঈমানের সৌন্দর্য অর্জন করা সম্ভব নয়। মহান আল্লাহ ইসলামের শেষ নবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে সর্বোৎকৃষ্ট চরিত্রের অধিকারী করে দুনিয়ায় পাঠিয়েছেন।

এ সময় তিনি পবিত্র কোরআনের বিভিন্ন সুরার আয়াত উদ্ধৃত করে তরজমা করেন।

জামায়াত যত বড়ো হবে নামাজ কবুল হওয়ার সম্ভাবনাও তত বেশি হবে উল্লেখ করে মন্ত্রী পরিষদ সচিব বলেন, সব বিষয়েই আল্লাহর ওপর বিশ্বাস করতে হবে। সবাইকে সঙ্গে নিয়ে জামায়াতের সঙ্গে নামাজ পড়তে হবে। পাঁচটি উপাদান ঈমানকে মূল্যায়ন করা হয়ে থাকে। এগুলো মেনে আল্লাহর প্রতি আনা ঈমানকে আরও দৃঢ় করতে হবে। নিজের অবস্থান বিবেচনা করতে হবে। ইসলাম সম্পর্কে জ্ঞান বাড়াতে হবে। আল্লাহকে ভয় পেতে হবে। ইসলামিক বই পড়তে হবে। আলোচনা করতে হবে। জ্ঞান, বিদ্যা ও মেধা প্রয়োগ করে তা কাজে লাগাতে হবে।

এ সময় তিনি সুরা বাকারার-৪৩ নম্বর আয়াতের ব্যাখ্যা দিয়ে বলেন, মসজিদে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়তে হবে। নামাজ ঈমানকে আরও মজবুত করে। আর হারাম থেকে দূরে থাকতে হবে। মানুষের ওপর জুলুম করা যাবে না। ঈমান মজবুত করার উত্তম উপায় হলো- আল্লাহকে ভয় করতে হবে। দিনদার ও ঈমানদারগণের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখতে হবে।

About admin

Check Also

সুখবর দিলেন মিথিলা

দুই বাংলার অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা। সম্প্রতি এই অভিনেত্রী জানালেন— নতুন একটি ওয়েব সিরিজে যুক্ত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *