Breaking News

স্বামীর ভিটায় অধিকার আদায় করতে এসে লাঞ্ছনার শিকার বিধবা

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে স্বামীর ভিটায় অধিকার আদায় করতে এসে লাঞ্ছনার শিকার হয়েছেন এক বিধবা। মৃত স্বামীর প্রথম স্ত্রীর সন্তানদের বাধার সম্মুখীন হন তিনি। এ সময় বিধবার কোলে তার শিশু সন্তানও ছিল।

মঙ্গলবার দুপুরে ভুক্তভোগী ওই নারী গফরগাঁও থানায় এসে এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

ওই নারীর নাম রুমা আক্তার। তিনি গৌরীপুর উপজেলার গংঙ্গাশ্রম গ্রামের আহাম্মদ আলীর মেয়ে।

রুমা আক্তার জানান, বিগত ২০০৭ সালে গফরগাঁও উপজেলার রাওনা ইউনিয়নের পাঁচুয়া গ্রামের মৃত শহীদ আ: জব্বার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক এ, এইচ, এম আসাদ ওরফে নয়ন তাকে দ্বিতীয় বিয়ে করেন। বিয়ের পর রুমাকে নিয়ে পাশ্ববর্তী শ্রীপুর থানাধীন জয়নাবাজার এলাকায় বসবাস করতেন। দাম্পত্য জীবনে তাদের ঘরে দুইটি কন্যা সন্তান জন্ম লাভ করে। গত ২৯ জুন ২০০১ সালে শিক্ষক এ,এইচ,এম আসাদ ওরফে নয়ন মারা যান। জীবিত থাকা অবস্থায় তিনি তিনটি বিয়ে করেন। গত রোববার ও সোমবার স্বামীর ভিটাতে অধিকার আদায় করতে গেলে বিপত্তি ঘটে।

তিনি বলেন, আমার স্বামীর প্রথম স্ত্রী শাহানাজ বেগম (৪৫) ও তার দুই সন্তান মোজদালিফা ফেন্সি (২৫) ও আল মাহাদি হাসান (২৪) মিলে গালিগালাজ, মারপিট করে আমাকে তাঁড়িয়ে দেয়। পরে মঙ্গলবার দুপুরে গফরগাঁও থানায় অভিযোগ দায়ের করি।

তিনি অভিযোগ করে আরো বলেন, আমার এতিম সন্তানদের আমার স্বামীর পেনশনের টাকা ও সম্পত্তির অধিকার থেকে বঞ্চিত করতে আমাকে ও সন্তানদের মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছে। গত দুই দিন আমাকে শারিরীকভাবে লাঞ্ছিত করেছে তারা। দুইটি কন্যা সন্তান নিয়ে আমি অনেক কষ্টে আছি। আমি আমার ও সন্তানদের প্রাপ্য অধিকার চাই।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শাহাবুল আলম বলেন, শিক্ষক নয়ন মারা যাওয়ার পর তার তিন স্ত্রী নিয়ে একাধিক বার স্থানীয়ভাবে মিমাংসা করতে বসেছি। কিন্তু তারা ঐক্যমতে আসেনি বলে এখনো পেনশনের টাকা তুলতে পারছে না। আর সম্পত্তির নিয়েও কোনো সুরাহা হয়নি।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে আল মাহাদি হাসানের সাথে কথা বললে তিনি মারপিটের ঘটনার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমার সৎ মা পুরাতন ঘরে থাকতে চান কিন্তু আমরা উনাকে বলেছি বাবার ভিটাতে খালি জায়গায় ঘর নির্মাণ করে থাকার জন্য।

গফরগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ফারুক আহম্মেদ বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। একজন অফিসারকে তদন্তের জন্য ঘটনাস্থলে পাঁঠানো হয়েছে। প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

About admin

Check Also

পুলিশ বলল ‘নেই’, হাজতখানা থেকে স্বামী চিৎকার করে স্ত্রীকে বলল ‘আছি’

আইনজীবী এবং মানবাধিকারকর্মী আবুল হোসাইন রাজন। পুরান ঢাকার বাসা থেকে অফিসের উদ্দেশ্যে বের হয়েছিলেন ২২ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *