আ’লীগ নেতাকে গাছে বেঁধে মারধরের ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান বরখাস্ত

ট্টগ্রামের পটিয়ায় আওয়ামী লীগের নেতাকে গাছের সাথে বেঁধে মারধরের ঘটনায় পটিয়া উপজেলার হাইদগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বি এম জসিমকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করেছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।

গত ১১ সেপ্টেম্বর স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব এ কে এম মিজানুর স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে এ আদেশ জারি করা হয়।

চলতি বছরের পবিত্র রমজানে হাইদগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের একটি ইফতার মাহফিলে আধিপত্য নিয়ে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি জিতেন কান্তি গুহকে গাছে বেঁধে মারধর করার ঘটনা ঘটে। পরে এ ঘটনায় জিতেন কান্তি গুহের ছোট ভাই পটিয়া থানায় মামলা করেন। ওই মামলায় চেয়ারম্যান জসিম চার মাস আট দিন কারাভোগের পর গত বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে জামিনে মুক্ত হন। বর্তমানে তিনি অসুস্থ অবস্থায় চট্টগ্রামের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

জানা গেছে, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আধিপত্য নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এ বিরোধের জের ধরে গত ২৯ এপ্রিল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি জিতেন কান্তি গুহকে চেয়ারম্যানের অনুসারীরা শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে। ঘটনার দিন রাতে ইউপি চেয়ারম্যান জসিম ও তার ছেলে মুসফিক উদ্দিন ওয়াসিকে পুলিশ গ্রেফতার করে।

স্থানীয় সরকার ইউনিয়ন পরিষদ আইন, ২০০৯-এর-৩৪(১) ধারা অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করতে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের কাছে সুপারিশ করলে গত ১১ সেপ্টেম্বর প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়।

পটিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো: আতিকুল মামুন স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে হাইদগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান বি এম জসিমকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে বলে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন এই সংক্রান্ত একটি চিঠি তিনি হাতে পেয়েছেন।

About admin

Check Also

সুখবর দিলেন মিথিলা

দুই বাংলার অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা। সম্প্রতি এই অভিনেত্রী জানালেন— নতুন একটি ওয়েব সিরিজে যুক্ত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *