Breaking News

নিম্নমানের খাবারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ, নিজ সংগঠনের কর্মীকে পেটাল ছাত্রলীগ

ক্যান্টিনে নিম্নমানের খাবার পরিবেশনের বিরুদ্ধে সরব হওয়ায় ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের এক গ্রুপের হামলায় আহত হওয়ার অভিযোগ তুলেছেন ছাত্রলীগেরই এক কর্মী।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে নিউমার্কেট সিটি কমপ্লেক্সের সামনে এ ঘটনা ঘটে।তার অভিযোগ, কাওসার হাসানের নির্দেশে অন্তত ৩০ ছাত্রলীগকর্মী এই হামলা করেছে।তবে অভিযোগ অস্বীকার করে কাওসার হাসান দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘জিওন ক্যান্টিন থেকে চাঁদা চাইলে শিক্ষার্থীদের হামলার শিকার হয়।’এ ঘটনায় কাওসার নিজেকে নির্দোষ দাবি করেছেন।

ঢাকা কলেজ সূত্রে জানা গেছে, কলেজ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে বন্ধুদের সঙ্গে যৌথভাবে ক্যান্টিনের লিজ নেন কাওসার।জিওন জানান, গতরাতে তিনি ক্যান্টিনে খেতে গিয়েছিলেন। বেশি দামে নিম্নমানের খাবার পরিবেশন করা হচ্ছে দেখে তিনি ম্যানেজারকে ক্যান্টিন বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন।

জিওনের অভিযোগ, রাতের খাওয়া শেষ করে নিউমার্কেট সিটি কমপ্লেক্সের সামনে চায়ের দোকানে বসে ছিলেন তিনি। সেসময় ছাত্রলীগের একটি গ্রুপ রড, হকিস্টিক ও ছুরি নিয়ে তার ওপর হামলা করে।তবে নিজের ক্যান্টিন মালিক পরিচয় অস্বীকার করেছেন কাওসার। তিনি জানান, তার বন্ধু ক্যান্টিনের মালিক।তার অভিযোগ, জিওনের ক্যান্টিন বন্ধের হুমকি দেওয়ার কোনো অধিকার নেই। সে চাঁদা নিতে এসেছিল।

জিওন জানান, ক্যান্টিনে নিম্নমানের খাবার পরিবেশন করা হয় এমন অভিযোগ পেয়ে তিনি সেখানে যান। গিয়ে দেখেন সেই খাবারের আবার বেশি দাম নেওয়া হচ্ছে। এ কারণে তিনি ম্যানেজারকে আপাতত ক্যান্টিন বন্ধ রাখতে বলেন। তারপর প্রশাসনের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করে ক্যান্টিন খুলে দেওয়া হবে।

‘আমি ক্যান্টিনে নিম্নমানের খাবার পরিবেশনের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়া কারণেই কাওসার আমাকে চাঁদাবাজ বলছে’, বলেন তিনি।এ বিষয়ে ঢাকা কলেজ অধ্যক্ষ অধ্যাপক মোহাম্মদ ইউসুফ ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘ঘটনাটি আমাদের জানানো হয়েছে। আসলে কী ঘটেছিল তা আমরা খতিয়ে দেখছি।’

নিউমার্কেট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুল লতিফ ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘এ ঘটনা সম্পর্কে আমরা অবগত না। পরবর্তীতে কেউ অভিযোগ দিলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

About admin

Check Also

ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে মাগুরার দাদা বানিয়েছে আ. লীগ: ফখরুল

আওয়ামী লীগ নেতাদের উদ্দেশ্যে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আপনারা মাগুরা নির্বাচনের কথা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *