Breaking News

যশোরের ৫ মাসের গরুর দাম ৫ লক্ষ টাকা

যশোর মণিরামপুরের খর্বাকৃতির গরু ‘ঝন্টু’। প্রায় ৫ মাস বয়সের এঁড়ে বাছুরের উচ্চতা ১৭ ইঞ্চি এবং দৈর্ঘ্যে ৩১ ইঞ্চি । তবে, ওজনে প্রায় ২০ কেজি হবে।

মণিরামপুরের ৫ মাস বয়সী এই এঁড়ে বাছুরটি বিশ্বের সবচেয়ে খর্বাকৃতির গরু হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ২০১৫ সালে গিনেজ রেকর্ডে ভারতের কেরালার ‘মানিক্যান’ গরুর উচ্চতা ছিল ২৪ ইঞ্চি এবং ওজন ছিল ৪০ কেজি। পরে এদেশের আশুলিয়ার একটি ফার্মে ‘রানী’ নামের গরুটি গিনেজ রেকর্ডে স্থান পায়। এই গরুটির উচ্চতা ছিল ২০ ইঞ্চি এবং ওজন ছিল ২৬ কেজি। যে কারণে ঝন্টু নামের এই গরুটি গিনেজ রেকর্ডে স্থান পেতে পারে অনেকেই ধারণা করছেন।

গত রোজার ঈদের পরদিন মণিরামপুর উপজেলার খানপুর ইউনিয়নের খামারবাড়ি গ্রামের সরোয়ারের বাড়িতে পোষা গাভীটি এই এঁড়ে বাছুরটি জন্ম দেয়। জন্মের সময় বাছুরটি বর্তমানের তুলনায় আরো ছোট ছিল।জন্মের পর থেকে বাছুরটি নিয়ে বাড়িতে আনন্দের শেষ নেই। দুর-দূরন্ত থেকে খর্বাকৃতির এড়ে বাছুরটি এক নজরে দেখতে বাড়িতে ভিড় জমাচ্ছে। বাড়ির ছোট বড় সবাই আদর করে নাম রেখেছে ঝন্টু। বাড়ির সকলের আদরের গরুটি স্বাভাবিক গরুর মতই খাওয়া দাওয়া করে। কিন্তু তারপরও উচ্চতা, দৈর্ঘ্যে এমনকি ওজনে বৃদ্ধি পায়নি। ইতোমধ্যে বাছুরটি কিনতে চাচ্ছেন অনেকেই। যার দাম হাঁকানো হয়েছে ৫ লাখ টাকা। দেড় লাখ টাকায় কিনতে চাইলেও দেননি বাছুর মালিক।

মালিক সরোয়ার হোসেন জানান, তার বাড়িতে তিনটি গাভী রয়েছে। স্থানীয় একজনের কাছ থেকে তিনটি গাভীর বীজ দেয়া হয়। এরমধ্যে দুটি গাভী স্বাভাবিক বাচ্চার জন্ম দিলেও একটা গাভী খর্বাকৃতির এঁড়ে বাছুরের জন্ম দেয়। দুই দিন আগে পাবনা জেলা থেকে কয়েকজন লোক বাড়িতে আসেন। বাছুরটি কিনতে চান। তাদের কাছে বাছুরটির দাম চান ৫ লাখ টাকা। কিন্তু তারা দেড় লাখ টাকা দিতে চাইলেও বিক্রি করেনি।গাভীর বীজ (সিমেন) বিক্রয়কারী সাইফুল কবীর জানান, তিনি এডিএল (আমেরিকান ডেইরি লিমিটেড) কোম্পানির সিমেন (বীজ) বিক্রি করেন। সরোয়ারের তিন গাভীর জন্য এই সিমেন দেয়া হলেও একটি বাওন (খর্বাকৃতির) এঁড়ে বাছুর জন্ম নেয়।উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. পার্থ প্রতিম রায় জানান, জেনেটিক্যাল কারণে এটি হতে পারে। তবে, বাছুরটি দেখে বাকিটা বলতে পারবো।

About admin

Check Also

নেছারাবাদে অভিভাবক দম্পত্তিকে ঝাড়ু পেটার হুমকির অভিযোগ

নেছারাবাদে স্বরূপকাঠি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এক ছাত্রী অভিভাবক দম্পত্তিকে ঝাড়ু পেটা করে বিদ্যালয় থেকে বের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *