মুক্তিযুদ্ধে জিয়া ছিলেন পাকিস্তানি এজেন্ট: নানক

 

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তানি এজেন্ট হিসেবে অনুপ্রবেশ করেছিলেন। গোলাম আযমকে নাগরিকত্ব ফিরিয়ে দেওয়ার মাধ্যমে এর পরিষ্কার চিত্র ফুটে উঠেছিলো।
সোমবার (২২ আগস্ট) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি মিলনায়তনে ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, ‘প্রতিরাতে গুলির শব্দে আমরা আতঙ্কিত হয়ে উঠতাম। প্রতিদিন ক্যান্টনমেন্টে গুলির শব্দ। প্রায় ১২ শত সামরিক বাহিনীর কর্মকতাকে হত্যা করেছিল জিয়াউর রহমান। কারণ তার ক্ষমতার পথকে সহজ করতে হতো।’
তিনি বলেন, ‘২০০৪ সালের ২১ আগস্ট, আর ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট, একই ধারা, একই সিদ্ধান্ত একই অপশক্তি। তারা জাতির পিতাকে সপরিবারে হত্যা করেছিল, তারা বেয়নেট দিয়ে খুঁচিয়ে লক্ষ প্রাণের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীনতার মূল মন্ত্র অসাম্প্রদায়িকতা, ধর্মনিরপক্ষেতাকে উচ্ছেদ করেছিল।’ ‘সেদিন গ্রেনেড ছোড়ার পর যখন নেত্রী (শেখ হাসিনা) বেরিয়ে গেছেন, তার গাড়ির চাকা গুলি করে পাঞ্চার করে করে দেওয়া হলো। এমনভাবে পরিকল্পনা করা হয়েছিলো, গ্রেনেডে যদি শেষ করে না দেওয়া যায়, তাহলে তাকে গুলি করে হত্যা করে দেওয়া হলো। হাসপাতালগুলোতেও বিএনপিপন্থী ডাক্তাররা চিকিৎসা দিচ্ছিল না।’
সভায় আরও বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুর রহমান, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক এবং এসএম কামাল হোসেন।

About admin

Check Also

সুখবর দিলেন মিথিলা

দুই বাংলার অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা। সম্প্রতি এই অভিনেত্রী জানালেন— নতুন একটি ওয়েব সিরিজে যুক্ত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *