Breaking News

কোনও স্ত্রীর কাছেই পেলেন না, ভাইয়ের কাছে হস্তান্তর রুবেলের মরদেহ

রাজধানীর উত্তরায় প্রাইভেটকারে গার্ডারচাপায় নিহত আইয়ুব আলী হোসেন রুবেলের মরদেহ হস্তান্তর নিয়ে কিছুটা জটিলতা দেখা দেয় হাসপাতালে। এ সময় নিজের স্বামী দাবি করে হাজির হন তিন থেকে চারজন নারী। তবে শেষ পর্যন্ত তাদের কাউকেই রুবেলের মরদেহ দেয়া হয়নি। সমঝোতার ভিত্তিতেই শেষপর্যন্ত মরদেহ বুঝে দেয়া হয় রুবেলের ভাই জিয়ার কাছে।

সোমবার (১৫ আগস্ট) দুর্ঘটনায় বেঁচে যাওয়া রুবেলের ছেলে হৃদয়ের খালাতো ভাই জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘আমরা রুবেলের মরদেহ বুঝে নিয়েছেন। মরদেহ তার গ্রামের বাড়ি মেহেরপুরে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। সেখানে তাকে সমাহিত করা হবে।’

রুবেল হোসেনের বোন রেহেনা খাতুন চ্যানেল 24 অনলাইনকে বলেন, `আমার ভাইয়ের দুই স্ত্রী। বাকি স্ত্রীরা নিজের স্বামী দাবি করলেও তারা বিয়ের কোন কাগজপত্র দেখাতে পারেননি। তাই দ্বিতীয় স্ত্রী ও আমার ভাইয়ের হাতে রুবেলের লাশ তুলে দিয়েছে। বিকেল সাড়ে ৪ টার দিকে আমার ভাই ও দ্বিতীয় স্ত্রীর আত্মীয় স্বজন মিলে অ্যাম্বুলেন্স যোগে লাশ নিয়ে মেহেরপুরের উদ্দেশে রওনা দিয়েছে। রাতে দ্বিতীয় স্ত্রী ও সন্তানদের সাথে আমার ভাই যেহেতু মানিকগঞ্জের সিংরায় থাকতেন। সেখানে রাতে প্রথম জানাযা অনুষ্ঠিত হবে। ভোরের দিকে মেহেরপুর সদর উপজেলার রাজনগর গ্রামে তার নিজ বাড়িতে লাশটি পৌঁছাবে। সকালের ২য় জানাযা শেষে গ্রামের কবরস্থানে রুবেলের লাশ দাফন করা হবে। লাশ পৌঁছানোর পর জানাযার সময় নির্ধারণ করা হবে বলেও তিনি জানান।‘

রাজধানীর উত্তরায় নির্মাণাধীন বাস র‌্যাপিড ট্রানজিট- বিআরটি প্রকল্পের ক্রেন থেকে ভায়াডাক্টের অংশ বা বক্স গার্ডার প্রাইভেটকারের ওপর পড়ে নিহত ৫ জনের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

About admin

Check Also

উঠানে বাবার লাশ, সন্তানরা অবসরের টাকা নিয়ে দ্বন্দ্বে

চট্টগ্রাম নগরীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান মনির আহমদ (৬৫)। মরদেহ হাসপাতাল থেকে নিয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *